প্রিয় নদী

নদীর ওপরে, নদীবক্ষে বেশ ক’টি সুখী দিন
কেটেছিলো মৃদুমন্দ ঢেউয়ের দোলায়,
নদীতীর প্রকৃতই সুখী গৃহকোণ ব’লে মনে হয়েছিলো;
নদীর সময় কম থমকে দাঁড়াবার_
তবু নদী স্থির হ’য়ে কিছুটা থমকে সময় দিয়েছিলো,
এতটা প্রশ্রয় আমি আশাও করিনি;
আমার সৌভাগ্য এই স্বেচ্ছায় নদীই বক্ষে তার
দিয়েছিলো ঠাই _ আতিথ্য, আদর, সুখ।
নদী বলেছিলো : “ভুলে যেয়ো,
আমার তো তাড়া আছে, যাই…”
অবশ্য আমার কোনো তাড়া নেই _ আমি দীর্ঘসূত্রী,
‘আজ থাক্ কাল হবে’ _ ব’লে আমি ফেলে রাখি কাজ,
শেষঅব্দি কোনো কাজই সম্পন্ন করি না_
প’ড়ে থাকে কাজ _ কাজের ওপরে ধুলোবালি জমে,
প্রভূত শ্যাওলা জমে বিষম জরুরি কাজে_
এইভাবে অপরাহ্নে গড়ায় আমার দিনগুলি;
কর্মময় সকাল-দুপুর
কেউ না আমার _ আমি অপরাহ্নময়!

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s