কথিত কথিকা

চশমার ফাঁকে চড়ুই-চোখা দুষ্টুমিতে
প্রতীয়মান ক্ষণজন্মা অশ্রু,
তাড়িয়ে বেড়ায় বোহেমীয় হৃদয় ।
নাবালিকা, ও চোখে অশ্রু দেখার জন্য
কাঠখড়ের মতো পোড়াই নি এতো চন্দ্রালোক !

ছলছল দুচোখ যেন হরিণী বৃষ্টি-
অমন বৃষ্টি চাই নি, নাবালিকা !
সদ্য ভূমিষ্ঠ সুখের পায়তারা-
সিঁড়ি বেয়ে নেমে আসুক কপোলে ।

যে ভাষা ভালোবাসা শিখিয়েছিল-
প্রতীক্ষিত জলের মতো নির্বাক কথা বলা;
সরল, অথচ বেঁচে থাকার মাধ্যম ।
পরিণত চোখে তবু বিপ্রতীপ হাহুতাশ !!
নাবালিকা, ও চোখে বিষাদ দেখার জন্য
তোমার বুকে ঠাই খুঁজি নি সহস্রবার ।

বাসুরি আবেশ ছড়িয়ে পড়ুক-
দুচোখের প্রান্তর পেরিয়ে,
হাতের তালুতে একে যেও চিরস্থায়ী জলছাপ;
রিক্সায় উঠে যতবার ফিরে তাকাও-
সামাজিকতা জলাঞ্জলি দিয়ে
ইচ্ছে হলেই ছুটে এসো, নাবালিকা ।
দুচোখের হাসিতে নিঃশ্বাস খুঁজে
ভালোবাসা শেখাতে চাই ভালোবেসে,
চাই স্পর্শবিন্দু মৃত্যু !

 

– জিহান আল হামাদী
২রা নভেম্বর’২০১৩

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s